মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

ভার্ক

ভিলেজ এডুকেশন রিসোর্স সেন্টার (ভার্ক)

 

ভিলেজ এডুকেশন রিসোর্স সেন্টার (ভার্ক)

 

পটভুমিঃ-

 

ভিলেজ এডুকেশন রিসোর্স সেন্টার গঠিত হয় ১৯৭৭ সালে। সংক্ষেপে এর পরিচয় ভার্ক বা ভি ই আর সি, এ নামের অর্থ দাড়ায় পলস্নী সম্পদ ব্যবহার শিক্ষা কেন্দ্র। গঠনকালে ভার্ক ইনিসেফের আর্থিক সহায়তায় সেভ দ্যা চিল্ড্রেণ (ইউএসএ) এর একটি প্রকল্প হিসাবে আত্ন প্রকাশ করে। শুরুতে প্রকল্পটির উদ্দেশ্য ছিল বিভিন্ন শিক্ষা উপকরণ তৈরি, সংগ্রহ এবং তার উন্নয়ন। এসব উপকরণ সমূহ যাচাই ও গ্রহণযোগ্যতা পরীক্ষাার পর তা বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার মধ্যে ছড়িয়ে দেয়া। ভার্ক কে ১৯৮১ সালে একটি বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী উন্নয়ন সংগঠনে রুপ দেয়া হয়। ভার্ক হয়ে ওঠে এ দেশীয় সংগঠন।

 

মিশনঃ-

 

সংস্থাটির মিশন হচ্ছে মানব উন্নয়নের জন্য একটি গতিশীল ও অংশীদারিত্বমুলক স্থায়ীত্বশীল প্রক্রিয়া প্রতিষ্ঠা ও নিশ্চিত করা। মানব উন্নয়নের জন্য এমন এক গতিময় প্রাঞ্জল প্রক্রিয়া গড়ে তোলা ও বিকশিত করা, যে প্রক্রিয়া হবে অংশগ্রহণমূলক এবং টেকসই। তাই ভার্ক কর্মক্ষেত্রে নতুন নতুন প্রক্রিয়া গড়ে তোলে আর তারপর তা থেকে শেখা বিষয়গুলো উন্নয়ন কাজে নিয়োজিত অন্যদের কাছে পৌছে দেয়।

ভার্কের সার্বিক কার্যক্রমঃ-

-  ভার্ক কমিউনিটি পর্যায়ে পানি ও পয়ঃ নিস্কাশন
 - শিক্ষা
- স্থানীয় সরকার শক্তিশালীকরণ
- স্থানীয় বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সামর্থ বৃদ্ধি কার্যক্রম
-  স্থাস্থ্যসেবা কার্যক্রম
-  উন্নত চুলা কার্যক্রম
- দুর্যোগ প্রস্তত্তি ও ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম
-  ঋণ কার্যক্রম এবং
- গবেষণা ও মূল্যায়ন সহ নানাবিধ কার্যক্রম বাসত্মবায়ন করছে।

রাজারহাট উপজেলায় ভার্কের কার্যক্রমঃ-

1.সাউথ এশিয়া ওয়াশ রেজাল্ট প্রজেক্ট- (সফল প্রকল্প)-২

2.ঋণ কার্যক্রম

 

যোগাযেগের ঠিকানা:

আহমেদ ওমর ফারুক

প্রকল্প ব্যবস্থাপক

ভিলেজ এডুকেশন রিসোর্স সেন্টার (ভার্ক)

রাজারহাট, কুড়িগ্রাম

মোবাইলনম্বরঃ-01712762925

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter